নয়া শিক্ষা নীতি

নয়া শিক্ষা নীতি

এই মুহূর্তে আজকের ব্যস্ত পৃথিবীতে অন্যতম প্রধান আলোচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে “নয়া শিক্ষা নীতি “। পুরোন সব সিস্টেম কে উলটে দিয়ে আমাদের কেন্দ্রীয় সরকার যে নতুন নীতি পেশ করলেন, সেটি এখনো অনুমোদনের অপেক্ষা য় আছে। বিষয়টি কি ছিল আর কি হবে, আগে একটু ভালো করে বুঝে নেওয়া যাক।

আগে ছিল -- 10+2+3 (clge)
এখন হবে -- 5+3+3+4 (clge)

এই ব্যবসথায় কিছু সদর্থক ও কিছু নাবাচক, উভয় দিকই আছে।
সবচেয়ে বড়ো কথা হল,এই ব্যবস্থায় বিজ্ঞান, কলা বা বাণিজ্য বিভাগ বলে কিছু ভাগ থাকবেনা। যে পদার্থ বিজ্ঞান বিষয় কে প্রধান বিষয় হিসেবে পছন্দ করল, সে বিজ্ঞান এর আর একটি বিষয়ের সাথে সাথে দুটো কলা বিভাগের বিষয়, যেমন, ইতিহাস আর ভূগোল নিয়ে পড়তে পারবে। প্রতিটি ছাএ বা ছাএীর এইসুযোগ আছে বলে এটাকে আমরা সদর্থক প্রভাব হিসেবে ভাবতে পারি।

কিন্তু প্রশ্ন আসছে অন্য জায়গায়। এতগুলো রাজ্যে তাদের রাজ্যের বোর্ড ছাড়াও দিল্লীর দুটি বোর্ড সদা সক্রিয়। তিনটি বোর্ডের মধ্যে সবচেয়ে বেশি নাম্বার পায় সি.বি.এস.সি এর স্টুডেন্টরা।তারপর ই আসে আই.সি.এস.সি এবং অবশেষে এসে দাঁড়ায় স্থানীয় বোর্ড। আরও দুঃখের সংগে বলতে হয়, আজকাল পাঠ্যপুস্তকের মান এত নীচে নেমে গেছে যে ছোটরা কোন উপকার পাচ্ছে না। আমি আজকের বইয়ের মানের বিষয়ে খুব ই হতাশ।

তাই, আমাদের এখন অপেক্ষা করতে হবে ভবিষ্যতে র জন্য। বিল পাশ হয়ে গেলে কিভাবে চলবে ভবিষ্যতের শিক্ষা নীতি, মা সরস্বতীই শুধু জানেন।

রীতা বসু

অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা। সাখাওয়াত মেমোরিয়াল সরকারী বালিকা বিদ্যালয়।

One thought on “নয়া শিক্ষা নীতি

  1. নয়া শিক্ষানীতি,,,এক ধোঁয়াশা । এক আশা ও আশঙ্কার দ্বন্দ্ব । তাই নিয়েই ,বিশেষ মত ব্যক্ত করেছেন,, শ্রদ্ধেয়া রীতা বসু মহাশয়া,, প্রাক্তন দর্শন বিভাগের শিক্ষিকা, সাখাওয়াত মেমোরিয়াল ,গার্লস স্কুল।
    আমরা কৃতজ্ঞতা এবং ধন্যবাদ জানাই, শ্রদ্ধেয়া শিক্ষিকা মহাশয়া কে ।
    সম্পাদক,
    সম্পাদক মন্ডলী
    মুহূর্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *